ঢাকা রবিবার, ২০শে অক্টোবর ২০১৯, ৬ই কার্তিক ১৪২৬


সম্রাটের চিকিৎসায় তিন সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড


৮ অক্টোবর ২০১৯ ১২:৪৬

আপডেট:
২০ অক্টোবর ২০১৯ ১৪:৫০

ঢাকা: বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে ছয় মাসের কারাদণ্ড পাওয়া ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী ওরফে সম্রাটের চিকিৎসায় তিন সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক ডা. আফজালুর রহমান।


মঙ্গলবার (০৮ অক্টোবর) সকাল ১০টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সম্রাটের চিকিৎসার বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

ডা. আফজালুর রহমান বলেন, আজ সকালে সম্রাটকে আমাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি সিসিইউয়ে চিকিৎসাধীন। তার চিকিৎসার বিষয়ে আমরা তিন সদস্যের একটা ইনফরমাল মেডিক্যাল টিম গঠন করেছি। যেখানে আমাদের কার্ডিয়াক সার্জন ও কার্ডিওলজিস্ট সার্জন রয়েছেন।

 

‘যেহেতু তিনি অবজারভেশনে আছেন তাই আমরা আপাতত উনাকে কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা দিয়েছি। পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পর এর পরিপ্রেক্ষিতে আমরা কথা বলতে পারবো।’

তিনি বলেন, উনার কন্ডিশন এখন স্ট্যাবল আছে। তবে রোগী অবজারভেশনে থাকবে। আমরা ফলোআপ রিপোর্ট আপনাদের জানাবো। তবে পরীক্ষা-নিরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পর সাত সদস্যের একটি ফরমাল মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হবে। আপাতত ইমারজেন্সি ইনফরমাল মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. আফজালুর রহমান বলেন, ১৯৯৮ সালে উনি হার্টের একটা বাল্ব রিপ্লেসমেন্ট করেছিলেন। আমরা ইতোমধ্যে পরীক্ষা করে দেখেছি ওনার বাল্বটা ভালো কাজ করছে। ওনার শারীরিক অবস্থার অন্যান্য দিকগুলোও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। যেহেতু তিনি ব্যথার কথা বলেছেন, তাই আমরা তার ব্যথার বিষয়টি পর্যালোচনা করে দেখার চেষ্টা করছি- ব্যথাটা ঠিক কতটুকু মারাত্মক বা সহনশীল।

এর আগে সকালে কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে হঠাৎ বুকে ব্যথা অনুভব করলে সম্রাটকে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

রোববার (০৬অক্টোবর) গ্রেফতারের পর থেকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে ছয় মাসের সাজা পেয়ে ওই কারাগারে ছিলেন সম্রাট।