ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ই আশ্বিন ১৪২৬


ঘুষ ছাড়া ফাইল সই করে না প্রকৌশলী রবিউল


৬ জুলাই ২০১৯ ১০:১৯

আপডেট:
১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১০:৪৩

রুমা ও থানচি উপজেলা প্রকৌশলী রবিউল হোসেনের বিরুদ্ধে প্রকল্পের ফাইল সই করতে ঘুষ দাবি, দুর্ব্যবহার, টাকার বিনিময়ে ঠিকাদারের নিম্নমানের কাজ অনুমোদনের অভিযোগে পাওয়া গেছে।


জানা যায়, বান্দরবানের রুমা ও থানচি উপজেলা এলজিইডি, যেখানে ঠিকাদারি ব্যবসা দুর্নীতির চরমে। কর্মকর্তাদের যোগসাজসে কাজ হাতিয়ে নেওয়া,খোদ কর্মচারীরাই ঠিকাদারি ব্যবসার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার কারণে এখন স্থানীয়দের মুখে মুখে ‘দুর্নীতির আখড়া' বান্দরবানের রুমা ও থানচি উপজেলা এলজিইডি।’

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী রবিউল হোসেনের ঠিকাদারি ব্যবসার সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার কারণে দুর্নীতির আখড়া পরিণত হয়েছে বান্দরবানের রুমা ও থানচি এলজিইডি।’
স্থানীয় সূত্রে আরো জানা যায়, এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী রবিউল হোসেন উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, রাস্তা ও পুল নির্মাণ ও সংস্কার কাজে অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাৎ ও জালিয়াতের মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে কাজের গুণগতমান ও স্থায়িত্ব নষ্ট করছেন।

আরো জানা যায়, তিনি ১০% ঘুষ ছাড়া কোন ফাইলে স্বাক্ষর করেনা বলে অভিযোগ রয়েছে । এছাড়া্ও উন্নয়নের নামে বান্দরবান রুমা ও থানচি উপজেলা কাজের গুণগতমান এবং অগ্রগতি যাচাই ও তদারকি না করেও ১০% চুক্তির মাধ্যমে ছাড় করা হচ্ছে উন্নয়ন কাজের অর্থ এমন অভিযোগ স্থানীয়দের।

এছাড়া আরো জানা যায়, প্রকৌশরী রবিউল স্থানীয় হওয়ায় তিনি ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করেন এবং থানচি ও রুমা উপজেলাকে একটি দুর্নীতির আখড়া পরিণত করেছেন।

এ বিষয়ে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাথে জড়িত এলাকাবাসী এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে একাধিকবার লিখিতভাবে অভিযোগ করলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।
এ বিষয়ে রবিউলের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে কোন ধরনের যোগাযোগ ব্যবস্থা করা সম্ভব হয়ে ওঠে নাই।