ঢাকা শুক্রবার, ১০ই এপ্রিল ২০২০, ২৮শে চৈত্র ১৪২৬


বাঙালিদের ওপর আমরা শোষণ-গণহত্যা চালিয়েছি: পাকিস্তানি বিজ্ঞানী


১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:৫৫

আপডেট:
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:০৩

বাংলাদেশিদের সঙ্গে ন্যায্য আচরণ করেনি পাকিস্তান এবং তাদের ওপর শোষণ ও গণহত্যা চালানো ভুল হয়েছে বলে মনে করেন পাকিস্তানি পরমাণু বিজ্ঞানী পারভেজ আমিরালি হুদভয়।

তার দেশ বাঙালিদের সব সময় বঞ্চিত করেছে এবং তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানকে শোষণ ও অপমান করে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় সেখানকার মানুষকে পাকিস্তানি সেনারা নির্বিচারে হত্যা করেছে বলেও স্বীকার করেন তিনি।

রবিবার  দ্যা বিজনেস টাইমস  জানায়, পাকিস্তানের বন্দরনগরী করাচিতে ‘আদাব ফেস্টিভ্যাল’ শীর্ষক একটি সাহিত্য উৎসবে অংশ নিয়ে হুদভয় এসব কথা বলেন।

গত ৩১ জানুয়ারি শুরু হয়ে ২ ফেব্রুয়ারিতে পর্যন্ত এই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

৬৯ বছর বয়সী পারভেজ হুদভয় একাধারে বিজ্ঞানী, সামরিক বিশেষজ্ঞ, লেখক এবং মানবাধিকার কর্মী।

নিজ দেশে মৌলবাদ বিরোধিতা, বাক-স্বাধীনতা, অসাম্প্রদায়িকতা এবং আধুনিক শিক্ষা প্রসারের স্বপক্ষে তিনি একজন বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর।   

তিনি বলেন, ‘আমরা বাঙালিদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার, শোষণ ও গণহত্যা করেছি।

তাদের ওপর পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর এমন আচরণের প্রধান কারণ তাদের বর্ণবাদী মনোভাব।

এই মনোভাব থাকার কারণেই তারা বাঙালিদের নিচু জাতি বলে মনে করতো। ’

পারভেজ হুদভয় বলেন,  ‘গত ৭৩ বছর ধরে আমরা নিজেদের কাছেই প্রকৃত সত্যকে লুকিয়ে রেখেছি।

আমরা সেদিনও এই ব্যাপারে মিথ্যা ভেবেছি, আজকেও সেই মিথ্যে নিয়েই বেঁচে আছি। ’ পাকিস্তান রাষ্ট্রের জনক খোদ মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর সমালোচনাও করেন তিনি।

পারভেজ বলেন, ‘জিন্নাহ দ্বিধাগ্রস্ত ব্যক্তি ছিলেন, তাই তার পক্ষে রাষ্ট্রের প্রকৃত লক্ষ্য এবং আদর্শ স্থির করা সম্ভব হয়নি। ফলে পাকিস্তানে আজ ব্যাপক সংশয় ও শঙ্কার পরিবেশ।

কারণ পাকিস্তানের জন্মই হয়েছিল সংশয়ের মধ্য দিয়ে। ’ জিন্নাহর চিন্তাধারা দ্বিজাতি তত্ত্বের যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন তোলে এই বিজ্ঞানী বলেন, ‘জিন্নাহ পাকিস্তান রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন দ্বিজাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে।

সেই রাজনীতির ফসল হিসেবে উপমহাদেশে চির বৈরী দুটি দেশের জন্ম হয়েছে। আজন্ম এই শত্রুতার কারণেই এই অঞ্চলে কখনো শান্তি প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। ’