ঢাকা শুক্রবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ই ফাল্গুন ১৪২৬


হিন্দুত্ববাদী গুন্ডাদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাব: ঐশী


১৯ জানুয়ারী ২০২০ ১৪:২৮

আপডেট:
১৯ জানুয়ারী ২০২০ ১৪:৩৪

ভারতের জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় (জেএনইউ) ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষ বলেছেন, ‘হিন্দুত্ববাদী গুন্ডাদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাব’। এমনটাই জানিয়েছেন জনপ্রিয় অনলাইন "বিজনেস ট্রিবিউন" ।     

রবিবার জেএনইউতে হামলা চালায় মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা। এতে আহত হন ঐশীসহ অনেকে। সোমবার ঐশী হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান।

তার মাথায় ১৬টি সেলাই দেওয়া হয়।
হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘রবিবার আরএসএস পরিকল্পনা করেই হামলা চালিয়েছে। এমনকি আন্দোলনকারীদের সবাইকে চিহ্নিত করে হামলা চালানো হয়েছে। ’

৫০ বছরের ইতিহাসে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এমন নজির নেই বলেও দাবি করেছেন ভারতের ছাত্র ফেডারেশন বা কমিউনিস্ট পার্টির (মার্ক্সবাদী) ছাত্র সংগঠনের (এসএফআই) নেত্রী।

তিনি বলেন, ‘ক্যম্পাসে এবিভিপি সমর্থকরা ছাড়াও, বেশ কয়েকজন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তিও উপস্থিত ছিল। রবিবার দুপুর আড়াইটে নাগাদ আমরা পুলিশকে জানিয়েছিলাম যে, আমরা নিরাপদ বোধ করছি না। ’

ক্যাম্পাসে হামলা চালানোর জন্য অনেক আগে থেকেই প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছিল বলে আগেই বিবৃতি দিয়েছে জেএনইউর ছাত্র সংসদ।

ঐশী অভিযোগ করেছেন, ‘পুলিশ কোনও হস্তক্ষেপই করেনি। ’

একই সঙ্গে জেএনইউর উপাচার্য জগদেশ কুমারের বিরুদ্ধেও তোপ দেগেছেন ঐশী।

তিনি বলেন, ‘পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছিল। তারা বলেছিলেন, সব ঠিক আছে। আমরা ওদের সরিয়ে দিয়েছি। কিন্তু তার পরেই এই ঘটনা ঘটে। ’
ঐশী বলেন, ‘ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে গড়ে ওঠা আন্দোলন বার বার ভাঙার চেষ্টা করা হয়েছিল আগেও। কিন্তু, তাতে ব্যর্থ হয়েই, শেষ পর্যন্ত গুন্ডাদের দিয়ে হামলা করানো হয়। ’

তিনি অভিযোগের আঙুল তুলেছেন জওহরলাল নেহরু ইউনিভার্সিটি টিচার্স ফেডারেশন (জেএনইউটিএফ)-এর দিকেও।

তার দাবি, ‘ফি বৃদ্ধির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ চলাকালীন জেএনইউটিএফ আমাদের হুমকি দিয়েছিল। আমরা শুধু মাত্র আপোসে মীমাংসা চেয়েছিলাম। ’

ঐশী বলেন, ‘ক্যাম্পাসে হিংসা ছড়িয়েছে উপাচার্যের জন্যই। তার ইস্তফা দেওয়া উচিত। ’

রবিবারের পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করার পাশাপাশি, হুঁশিয়ারির সুরেই ঐশী বলেন, ‘জেএনইউ আমাদের ঘর ছিল, আছে, থাকবে। এবিভিপি তা ভাঙার চেষ্টা করলেও পারবে না। আমরা এমন হিংসা সহ্য করব না। ’

হিন্দুত্ববাদী গুন্ডাদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাবেন বলেও ঘোষণা দেন ঐশী।

খবর: বিজনেস ট্রিবিউন