ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৯ই ফাল্গুন ১৪২৬


আড়ংয়ে ট্রায়াল রুমে গোপন ভিডিও করার অভিযোগ


২৮ জানুয়ারী ২০২০ ১৪:৫৫

আপডেট:
২৮ জানুয়ারী ২০২০ ১৫:১৮

রাজধানীর বনানীর আড়ংয়ের আউটলেটের সহকর্মীর বিরুদ্ধে ‘ট্রায়াল রুমে গোপন ভিডিও’ করার অভিযোগ এনেছেন ভুক্তভোগী এক তরুণী।

অভিযোগে ওই তরুণী বলেন, তিনি বনানী আড়ংয়ের আউটলেটে বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেন। একই আউটলেটে কর্মরত অবস্থায় তারই সহকর্মী সিরাজুল ইসলাম সজীব গোপনে ট্রায়াল রুমে তার পোশাক পরিবর্তন করার ভিডিও ধারণ করে

। পরে সেই ভিডিও ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করার জন্য চাপসহ বিভিন্নভাবে ব্ল্যাকমেইল করতে থাকে।

এসব অভিযোগ এনে সিরাজুল ইসলাম সজীবের বিরুদ্ধে বনানী থানায় ভুক্তভোগী ওই তরুণী ১৬ জানুয়ারি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে ভুক্তভোগী ওই তরুণী অভিযোগ করে বলেন, ১১ জানুয়ারি রাতে বনানী আড়ংয়ের সাবেক সহকর্মী সিরাজুল ইসলাম সজীব তার ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে একটি ভিডিও পাঠায়। তিনি ভিডিওটি খুলে দেখেন যে, বনানী আড়ংয়ের আউটলেটের ট্রায়াল রুমে তার পোশাক পরিবর্তন করার দৃশ্য। পরে একই রাতে সজীব তাকে ভিডিও কলে এসে শরীর দেখাতে বলে এবং এর পরের দিন তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে চাপ দেয়। পরে তিনি এসব বিষয়ে রাজি না হলে তার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় সজীব।

পরে তরুণীর করা অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্তে নেমে ঘটনার সত্যতা পায়। মামলার তদন্তে পুলিশ একই আউটলেটের ট্রায়াল রুমে সজীবের করা এমন আরও অনেক গোপন ভিডিও এর সন্ধান পায়।

তদন্তকারী কর্মকর্তা জানান, ২০১৯ সালে বনানী আড়ংয়ে বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করার সময় সজীব ভুক্তভোগী তরুণীসহ তার আরও চার সহকর্মীর পোশাক পরিবর্তনের ভিডিও ধারণ করেন। পরে সে এসব ভিডিও সহকর্মীদের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করার জন্য চাপ দিতেন। কেউ রাজি না হলে গোপন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিতেন।

এ বিষয়ে বনানী থানার ওসি বিএম ফরমান আলী ’কে বলেন, ‘মামলাটি এখন আমাদের কাছে নেই। এটি ডিএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিটে চলে গেছে।’

ডিএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহকারী পুলিশ কমিশনার ধ্রুব জ্যোতির্ময় গোপ বলেন, ‘পুলিশ সজীবকে ২৫ জানুয়ারি গ্রেপ্তার করে। সজীবের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।’

এ বিষয়ে আড়ংয়ের হেড অব মার্কেটিং তানভির হাসানকে ফোন করা হলেও তার ফোন রিসিভ হয়নি।